মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সাধারণ তথ্য

১৪/১১/১৯৯৭ ইং তারিখে মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা টুংগীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটি শুভ উদ্ভোধন করেন এবং এর পর হতে ৩১ শয্যার হাসপাতালটির সেবা দান কার্যক্রম শুরু হয়। ০১/০৭/২০১১ তারিখে অত্র হাসপাতালটি কে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করা হয়। বর্তমানে ৫০ শয্যার কার্যক্রম চালু আছে। হাসপাতালে স্বাভাবিক সেবা প্রদানের পাশাপাশি উল্লেখ যোগ্য সেবা সমূহ হচ্ছেঃ-

 

১.  Comprehensive ই ও সি কার্যক্রম

২. ডি এস এফ  মাতৃস্বাস্থ্য ভাউচার স্কিম

৩. আইএমসি আই কার্যক্রম এবং New born stabilizing  unit.

৪. এমএনসিএস কার্যক্রম

 

 ** ২০০৫ সাল থেকে ২০১১ ইং সাল পর্যন্ত পর পর ৭ বার ইওসি কার্যক্রমে অত্র প্রতিষ্ঠানটি প্রথম হওয়ার গৌরব অর্জন করে এবং সরকার কর্তৃক পুরস্কৃত হয়।

 

 **  ডিএসএফ কার্যক্রমে প্রতি মাসে ১২০ থেকে ১৩০ জন হত দরিদ্র গর্ভবর্তী মহিলা অর্ন্তভুক্ত হন । এসব মায়েরা প্রসব পূর্ব এবং প্রসবত্তোর সেবা নেওয়ার জন্য  যাতায়াত ভাতা এবং প্রসব পরবর্তীতে পুষ্টিকর খাবারের জন্য ক্যাশ ইনসেন্টিভ ও উপহার সামগ্রী পাচ্ছেন।

 

 **  আইএমসিআই কার্যক্রমে ০ থেকে ৫ বৎসর শিশুদের বিশেষগুরুত্ব সহকারে সেবা প্রদান করা হয়। বেশীর ভাগ শিশু একই সাথে একাধিক অসুস্থ্যতায় ভূগে, তাই শিশুর সকল অসুস্থ্যতার চিকিৎসা একই সাথে প্রথম সাক্ষাতে করা প্রয়োজন। ‘‘ অসুস্থ্য শিশুর সমন্বিত চিকিৎসা ব্যবস্থাপনা’’ একটি কার্য্যকর কৌশল।

 

 **  এমএনসিএস কার্য্যক্রমে নবজাতকদের বিশেষগুরুত্ব সহকারে সেবা প্রদান করা হয়। জন্মের পর থেকে ২৮ দিন পর্যন্ত বয়সের শিশুকে নবজাতক বলা হয়। প্রতিদিন ৯৩০০ জন জন্মগ্রহনকারী শিশুর মধ্যে নবজাতক অবহেলায় মারা যায় ৬০৫ জন।

 

 **  আইএমসিআই এবং এমএনসিএস এর মূল লক্ষ্য শিশুর মৃত্যুর হার কমিয়ে আনা।